জুন ২০, ২০২৪

বৃহস্পতিবার ২০ জুন, ২০২৪

পাবজি গেমের সুপার লিগে অংশ নিতে নেপাল গেলেন বাংলাদেশি দুই দল তরুণ

PUBG Mobile Super League
ছবি: সংগৃহীত

অনলাইন মোবাইল গেমে আসক্ত তরুণ সমাজ। কেউ বৈধ আবার কেউ অবৈধভাবে এসব গেম খেলছেন। কিছু কিছু তরুণ দিনের অধিকাংশ সময় গেম খেলে কাটিয়ে দিচ্ছেন।

তবে এবার নেপালে বসছে অনলাইন মোবাইল গেম পাবজির প্রতিযোগিতা। জিতলে পারলে মিলবে ২ কোটি টাকা। সেরা চার দলে চলে যাবে পাবজি ওয়ার্ল্ড কাপে। যে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে সৌদি আরবে। সেখানে জিতলে মিলবে ৩৫ কোটি টাকা।

জানা গেছে, বিশ্বের অন্যতম বিখ্যাত অনলাইন মোবাইল গেম পাবজি। প্রতিদিনই প্রায় তিন কোটি ব্যবহারকারী গেমটি খেলে থাকে। জনপ্রিয় এই গেমটি নিয়ে প্রতিবছরই বিশ্বের বিভিন্ন জায়গায় ই-স্পোর্টস টুর্নামেন্টের আয়োজন করে থাকে মোবাইলটির নির্মাতা প্রতিষ্ঠান।

এবার সেই ধারাবাহিকতায় নেপালে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে পাবজি মোবাইল সুপার লিগ (পিএমএসএল) স্প্রিং ২০২৪। আসরের জন্য ঘোষণা করা হয়েছে বড় ধরণের পরুষ্কার।

আরও জানা গেছে, বড় এই ই-স্পোর্টস ইভেন্টে এবার অংশগ্রহণ করতে যাচ্ছে বাংলাদেশের ‘এ ওয়ান ই-স্পোর্টস’। আগামী ২২মে থেকে ১৫ জুন পর্যন্ত নেপালে এ খেলা অনুষ্ঠিত হবে।

পাবজি মোবাইল সুপার লিগে বাংলাদেশ ছাড়াও নেপাল, পাকিস্তান, মঙ্গোলিয়া, উজবেকিস্তান, তাজিকিস্তান, কাজাকিস্তান ও রাশিয়ার ই-স্পোর্টস টিম এতে অংশগ্রহণ করবে। সে দেশের তরুণরাও নেপাল পৌঁছেছে।

বাংলাদেশে ই-স্পোর্টসে অনেক প্রতিবন্ধকতা থাকলেও এদেশের ইস্পোর্টস খেলোয়াড়রা এগিয়ে যাচ্ছে। যথাযথ সহযোগিতা পেলে বাংলাদেশেও ই-স্পোর্টস ইন্ডাস্ট্রি গড়ে তোলা সম্ভব।

উল্লেখ্য ২০২১ সালে এ ওয়ান ইস্পোর্টস বাংলাদেশের প্রথম দল হিসেবে প্রথমবারের মতো পাবজি মোবাইলের গ্লোবাল চ্যাম্পিয়নশিপে অংশগ্রহণ করেছিল দুবাইতে।

গেমিং ও ইস্পোর্টস ইন্ডাস্ট্রি বর্তমানে সিনেমা বা সংগীত ইন্ডাস্ট্রির চেয়েও অনেক বড়। নতুন যুগের এই ইন্ডাস্ট্রিকে ইতিবাচকভাবে ভাবার সময় এসেছে। বিশ্বের সব দেশই ই-স্পোর্টস নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে।

এদিকে এশিয়ার অন্য দেশগুলো ই-স্পোর্টসকে সরকারিভাবে স্বীকৃতি দিচ্ছে। এমনকি মালয়েশিয়ার মতো দেশে ই-স্পোর্টসকে জাতীয় বাজেটে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

ভারতের গণমাধ্যম বলছে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সাম্প্রতিক সময়ে তার দেশের গেমার ও ই-স্পোর্টস অ্যাথলেটদের সঙ্গে এ শিল্পটিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার বিষয়ে বৈঠক করেছেন।