মে ২৩, ২০২৪

বৃহস্পতিবার ২৩ মে, ২০২৪

পহেলা বৈশাখে পানি ও হাতপাখা বিতরণ করছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ

Dhaka Metropolitan Police is distributing water and hand fans on Pahela Boishakh
ছবি: সংগৃহীত

পহেলা বৈশাখে আজ রোববার (১৪ এপ্রিল) রমনা পার্কে বৈশাখী উৎসবে মেতেছে নগরবাসী। গ্রীষ্মের খরতাপ মাথায় নিয়ে রাজধানীর বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এসে লাখো বাঙালি মিলিত হয়েছেন রমনা পার্কে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের সার্বিক নিরাপত্তায় পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠানে স্বতস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করেছেন নগরবাসী। তার মধ্য থেকে বাদ পরেনি নারী, শিশু ও বয়োজ্যেষ্ঠরাও।

সংস্কৃতিমনস্ক ডিএমপি কমিশনার হাবিবুর রহমান বিপিএম (বার), পিপিএম (বার) মানুষের সেবায় সব সময় ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নিয়েছেন। তার নির্দেশনায় এবার নববর্ষের অনুষ্ঠানে আগত মানুষের জন্য আরো কিছু উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

বর্ষবরণ উপলক্ষে রমনা ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আসা নারী, শিশু, বয়োজ্যেষ্ঠদের জন্য ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) পক্ষ থেকে বিনামূল্যে বিশুদ্ধ খাবার পানি সরবরাহ করা হচ্ছে।

অনুষ্ঠানস্থলে ডিএমপির পক্ষ থেকে বিশুদ্ধ পানি বিতরণের বুথ বসানো হয়। এসব বুথ থেকে বিতরণ করা হচ্ছে খাবার পানির বোতল। পাশাপাশি রমনা পার্ক, টিএসসি ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যান এলাকাতে বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে আসা দর্শনার্থীদের জন্য বিভিন্ন স্থানে ট্রলির মাধ্যমে সুপেয় পানির ব্যবস্থা করা হয়েছে।

যাতে তৃষ্ণার্ত মানুষ সহজেই তাদের হাতের কাছে পানি পায় এবং প্রচন্ড ঘরমে তাদের তৃষ্ণা নিবারণ করতে পারে। গ্রীষ্মের প্রচন্ড তাপদাহে একটু স্বস্তি পেতে অনুষ্ঠানে আগতদের মাঝে হাতপাখা বিতরণ করছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ।

বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে রাজধানীর রমনা পার্কে রক্তদান কর্মসূচির আয়োজন করছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ। রোববার সকাল থেকে রমনা পার্কে পুলিশ কন্ট্রোলরুমের পাশে এই রক্তদান কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

এর পাশেই রয়েছে ডিএমপির প্রাথমিক চিকিৎসা কেন্দ্র। সেখানে সার্বক্ষণিক দায়িত্বরত রয়েছেন চিকিৎসক ও নার্সগণ। কোন দর্শনার্থী যদি হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন তাহলে ডিএমপির এই প্রাথমিক চিকিৎসা কেন্দ্রে তাকে বিনামূল্যে প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা দেয়া হয়।

পুলিশ কন্ট্রোলরুমের এক পাশে বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে আগত বিশিষ্টজনদের আপ্যায়নের ব্যবস্থাও করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ।