মে ২৪, ২০২৪

শুক্রবার ২৪ মে, ২০২৪

গরমে এসি কেনার কথা ভাবছেন? জেনে নিন এই বিষয়গুলো

Air Conditioner (AC)
প্রতীকি ছবি/সংগৃহীত

গ্রীষ্মের তীব্র তাপমাত্রা থেকে মুক্তি পেতে অনেকেই এয়ার কন্ডিশনার (এসি) কেনার কথা ভাবছেন। তবে এসি কেনার আগে কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় বিবেচনা করা জরুরি, নাহলে বিদ্যুৎ বিল বেড়ে যেতে পারে।

বিদ্যুৎ বিলের ঝামেলা এড়াতে এবং টেকসই এসি ব্যবহারের জন্য নিচের দেওয়া বিষয়গুলো বিশেষভাবে মনোযোগ দিতে হবে।

বিশেষজ্ঞদের মতামত, এসিতে দুই ধরনের কয়েল ব্যবহার করা হয়, তামার কয়েল বা অ্যালুমিনিয়াম কয়েল।

তামার কয়েলের এসি:

  • তামার কয়েল: দ্রুত ঠান্ডা করে, রক্ষণাবেক্ষণ কম প্রয়োজন।
  • অ্যালুমিনিয়াম কয়েল: তুলনামূলকভাবে কম দামি, কিন্তু তামার কয়েলের তুলনায় কম টেকসই।

ঘরের আকার অনুযায়ী এসি:

ঘরের আকার বিবেচনা করুন। ১৪০-১৫০ বর্গফুটের জন্য ১ টন এসি যথেষ্ট। বড় ঘরের জন্য টন সংখ্যা বাড়ান। ১৮০ বর্গফুটের জন্য দেড় টন এসি প্রয়োজন।

থার্মোস্ট্যাট ও ব্লোয়ার:

থার্মোস্ট্যাট থাকলে তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করা সহজ। একাধিক ব্লোয়ার বিভিন্ন দিকে ঠান্ডা বাতাস ছড়িয়ে দিতে সাহায্য করে। ফ্যানের গতি নিয়ন্ত্রণ বিদ্যুৎ সাশ্রয় করে।

ইনভার্টার এসি:

বিদ্যুৎ খরচ কমায় এবং দীর্ঘস্থায়ী হয়।

রোদ ও তলা বিবেচনা: রোদ-ঝলমলে ঘর বা পাঁচতলা ভবনের উপরে অবস্থিত ঘরের জন্য অতিরিক্ত ০.৫ টন ক্ষমতা বিবেচনা করুন।

এসি কেনার সময় আরও কিছু বিষয়:

  • বিদ্যুতের ভোল্টেজের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ এসি নির্বাচন করুন।
  • EER (Energy Efficiency Ratio) যত বেশি হবে, বিদ্যুৎ খরচ তত কম হবে।
  • ব্র্যান্ড ও ওয়ারেন্টি বিবেচনা করুন।
  • পরিচ্ছন্নতার সুবিধার্থে সহজে খোলা যায় এমন এসি কিনুন।
  • নিয়মিত রক্ষণাবেক্ষণের ব্যবস্থা রাখুন।