মে ২৩, ২০২৪

বৃহস্পতিবার ২৩ মে, ২০২৪

কুমিল্লা নগরীর ৬ টি স্থানে শব্দ দূষণ বেশি, শাসনগাছায় সর্বোচ্চ

Shasongacha Bus Station, Cumilla
ছবি: সংগৃহীত

‘সুস্থ পরিবেশ, স্মার্ট বাংলাদশ’ প্রতিপাদ্যে আজ বুধবার কুমিল্লা জেলা প্রশাসকের সহযোগিতায় ও জেলা পরিবেশ অধিদপ্তরের আয়োজনে কুমিল্লায় আন্তর্জাতিক শব্দ সচেতনতা দিবস-২০২৪ পালিত হয়েছে।

আজ বুধবার (২৪ এপ্রিল) সকালে নগরীর নগর উদ্যানের বঙ্গবন্ধু ম্যুরালের সামনে থেকে র‍্যালি শুরু হয়ে নগরীর প্রধান প্রধান ফটক প্রদক্ষিণ করে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে এসে র‍্যালি শেষ হয়। পরে দিনটি উপলক্ষে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে পরিবেশ অধিদপ্তরের আয়োজনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনা সভায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) ফাহমিদা মোস্তফা সভাপতিত্বে প্র্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক খন্দকার মু. মুশফিকুর রহমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা সদর সার্কেল কামরান হোসেন ও ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. নাজমুল আলম।

ছবি: সংগৃহীত

পরিবেশ অধিদপ্তরের জেলা উপ-পরিচালক মোসাব্বের হোসেন রাজিব স্বাগত বক্তব্যে বলেন, “বাংলাদেশে তিন ধরণের দূষণ বেশী হয়। সেগুলো হলো, পানি, বায়ু ও শব্দ। শব্দ দূষণের কারণে হৃদরোগসহ আরো অনেক রোগ ব্যাধি দেখা দেয়। এতে শিশুর মেধা বিকাশেও বাধা দেয়। আমারা শব্দ দূষণ রোধে সমাজে সচেতনতা সৃষ্টি করার লক্ষ্যে লিফলেট বিতরণ ও বিভিন্ন প্রশিক্ষণমূলক কার্যক্রম সম্পন্ন করেছি।”

মোসাব্বের হোসেন রাজিব আরও বলেন, “ইতিমধ্যে, কুমিল্লা নগরীতে আমরা শব্দের মাত্রা জরিপ করে দেখেছি, কুমিল্লা নগরীর ৬ টি স্থানে শব্দ দূষণ বেশি হচ্ছে। তার মধ্যে, কান্দিরপাড়ে ৮২.১ ডেসিবেল, পুলিশ লাইনে ৭৯.৩ ডেসিবেল, শাসনগাছা ৯২.২ ডেসিবেল, টমসমব্রীজে ৮০.৮ ডেসিবেল, চকবাজারে ৮৬.৬ ডেসিবেল, জাঙ্গালিয়ায় ৭৮.৭ ডেসিবেল। যা স্বাভাবিক শ্রবণমাত্রা চাইতে অনেক বেশী। আমাদের দেহের স্বাভাবিক শ্রবণমাত্রা ৪৫-৬০ ডেসিবেল। তাই, শব্দ দূষণের মাত্রা কমাতে আমাদের পাশাপাশি সবাইকে সমন্বয় করে কাজ করতে হবে।

আলোচনা সভায় প্র্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক খন্দকার মু. মুশফিকুর রহমান। এছাড়া নগরীর গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গরা বক্তব্য রেখেছেন।

আলোচনা সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বেতারের উপস্থাপক রুমানা রুমি, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারী কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ড. এ কে এম আসাদুজ্জামান, জেলা ট্রাক মালিক সমিতির সভাপতি আবদুস সালাম, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন কুমিল্লা জেলার সাধারণ সম্পাদক আলী আকবর মাসুম, সাপ্তাহিক অভিবাদন সম্পাদক আবুল হাসানাত বাবুল সহ নগরীর বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ প্রমুখ।