মার্চ ১, ২০২৪ ৯:৫২ পূর্বাহ্ণ
মার্চ ১, ২০২৪ ৯:৫২ পূর্বাহ্ণ

ইমরান খানের ১০ বছরের কারাদণ্ড

Imran Khan
পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) এর প্রতিষ্ঠাতা ইমরান খান। ছবি: সংগৃহীত

সাইফার বা গোপন তারবার্তা ফাঁসের মামলায় পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও পিটিআই চেয়ারম্যান ইমরান খান এবং সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও দলের ভাইস চেয়ারম্যান শাহ মাহমুদ কুরেশিকে ১০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন একটি আদালত। মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারি) রাওয়ালপিন্ডির কারাগারে স্থাপিত বিশেষ আদালত তাদের এই সাজা দিয়েছেন। তবে এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করার কথা জানিয়েছে পিটিআই।

পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম ডনের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানা গেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সাইফার (সরকারি গোপন তথ্য প্রকাশ) মামলায় সাজা দেয়ার জন্য আদিয়ালা কারাগারে বন্দী রয়েছেন ইমরান খান। সেখানেই বসেছিল আদালত।

পিটিআই এর মুখপাত্র জুলফিকার জানান, রাওয়ালপিন্ডির গ্যারিসন শহরের একটি কারাগারে এই রায় ঘোষণা করেছেন আদালত।

এর আগে গত বছরের অক্টোবরে এই মামলায় ইমান খান ও শাহ মাহমুদ কুরেশিকে দোষী সাব্যস্ত করে আদালত। রাওয়ালপিন্ডির আদিয়ালা কারাগারে স্থাপিত বিশেষ আদালতে এই মামলার শুনানি হয়।

২০২২ সালের এপ্রিলে সংসদে অনাস্থার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী পদ থেকে ক্ষমতাচ্যুত হন ইমরান খান। বর্তমানে একটি দুর্নীতি মামলায় তিন বছরের কারাদণ্ড ভোগ করছেন তিনি।

পাকিস্তানে আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে পিটিআই তাদের দলীয় প্রতীকে অংশ নিতে পারবে না। এছাড়া নিষিদ্ধ করা হয়েছে ইমরান খানকেও। এবার নতুন করে কারাদণ্ডের আদেশ দেয়া হলো ইমরান খানের বিরুদ্ধে।