মে ২৪, ২০২৪

শুক্রবার ২৪ মে, ২০২৪

‘সোশ্যাল মিডিয়ার রাজধানী’ খেতাব পেল আরব আমিরাত

‘সোশ্যাল মিডিয়ার রাজধানী’ খেতাব পেল আরব আমিরাত
‘সোশ্যাল মিডিয়ার রাজধানী’ খেতাব পেল আরব আমিরাত। ছবি: সংগৃহীত

বিশ্বের ‘সোশ্যাল মিডিয়ার রাজধানী’ খেতাব দেওয়া হয়েছে আরব আমিরাতকে। প্রায় সব বাসিন্দার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থাকায় দেশটিকে এ খেতাব দেওয়া হয়। দেশটিতে যত মানুষ বসবাস করেন, সেই তুলনায় ফেসবুক অ্যাকাউন্টের সংখ্যা বেশি।

মঙ্গলবার (৯ মে) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে আরব আমিরাতের আরব আমিরাতের গণমাধ্যম খালিজ টাইমস।

ভিপিএন এবং প্রক্সির সেবা দেওয়া প্রতিষ্ঠান প্রক্সির‌্যাক জানান, সোশ্যাল মিডিয়া রাজধানীর সূচকে ১০ এর মধ্যে ৯ দশমিক ৫৫ স্কোর গড়ে বিশ্বে শীর্ষ অবস্থানে রয়েছে আরব আমিরাত। দেশটির বাসিন্দারা গড়ে প্রায় ৯টি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করেন। সূচকে ৮ দশমিক ৭৫ স্কোর নিয়ে আমিরাতের পর রয়েছে মালয়েশিয়া ও ফিলিপাইন। এরপর যথাক্রমে রয়েছে সৌদি আরব (৮ দশমিক ৪১), সিঙ্গাপুর (৭ দশমিক ৯৬), ভিয়েতনাম (৭ দশমিক ৬২), ব্রাজিল (৭ দশমিক ৬২), থাইল্যান্ড (৭ দশমিক ৬১), ইন্দোনেশিয়া (৭ দশমিক ৫) এবং হংকং (৭ দশমিক ২৭)।

এছাড়া ইন্টারনেট ও ইন্টারনেট সম্পর্কৃত বিষয়গুলোর সঙ্গে সাধারণ মানুষের যুক্ত থাকার বিষয়টিতেও শীর্ষে রয়েছে আরব আমিরাত। এ তালিকায় এরপর যথাক্রমে রয়েছে হংকং, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড, চিলি, সৌদি আরব, সিঙ্গাপুর, আর্জেন্টিনা, ভিয়েতনাম এবং তাইওয়ান।

এদিকে, গবেষণায় পাওয়া গেছে আরব আমিরাতের মানুষ গড়ে দৈনিক ৭ ঘণ্টা ২৯ মিনিট ইন্টারনেটের পেছনে ব্যয় করেন। যা বিশ্বের মধ্যে ১৩তম সর্বোচ্চ।

অপরদিকে, ইন্টারনেটে সবচেয়ে বেশি সময় ব্যয় করার শীর্ষে রয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। দেশটির মানুষ দিনে গড়ে ৯ ঘণ্টা ৩৮ মিনিট ইন্টারনেট ব্যবহার করেন।