মে ২৪, ২০২৪

শুক্রবার ২৪ মে, ২০২৪

শুনতে হয়েছে, ওরা আসলে আমারই গোপন সন্তান: রবিনা

শুনতে হয়েছে, ওরা আসলে আমারই গোপন সন্তান: রবিনা
শুনতে হয়েছে, ওরা আসলে আমারই গোপন সন্তান: রবিনা। ছবি: সংগৃহীত

তারকা অনেকেই সন্তান দত্তক নেন। কিন্তু বিয়ের আগেই রাভিনা ট্যান্ডন দুই মেয়ের দত্তক নেন জি ঠিকই শুনছেন।

সালটা ছিল ১৯৯৫, মাত্র ২১ বছর বয়সে দুই মেয়ে পূজা ও ছায়াকে দত্তক নেন রবিনা। সেসময় তাঁর ওই দুই মেয়ের বয়স ছিল ১১ এবং ৮ বছর। সেসময়ও সেই দত্তক সন্তানদের নিয়ে কিছু কম আলোচনা, চর্চা, বিতর্কের মুখে পড়েননি রবিনা ট্যান্ডন।

এক সাক্ষাৎকারে রাভিনা বলেন, ‘আপনি যেটাই করুন না কেন, আলোচনা, সমালোচনা হবেই। সেসময় পূজা ও ছায়াকে বলা হতো আমার লুকানো সন্তান। বলা হয়েছে, ওরা আসলেই আমার গর্ভে জন্মেছে, কিন্তু আমি লুকিয়ে রেখেছিলাম।’

আমার বয়স যখন ২১ তখন তাদের দওক নেই, তাদের বয়স ছিলো ৮ বছর এবং ১১ বছর। তাহলে এবার বলুন, আমি ওদের জন্মটা কোন বয়সে দিতে পারি?

রাভিনা বলেন, ‘আমাকে বলা হতো, কে আর আমাকে বিয়ে করবে? কারণ, আমি যে পুরো দলবল নিয়ে থাকি। আমার মেয়েরা, বিড়াল, কুকুর…। তখন আমি বলেছিলাম, আমাকে যে ভালোবাসবে, সকল কিছু নিয়ে আমকে গ্রহণ করবে। অনিল থাডানি সঙ্গে যখন প্রেম শুরু করি, তখন এটাই একমাত্র শর্ত ছিল, আর আমার স্বামী তা রেখেছেন। আমি আমার পুরো দলবল নিয়েই ওর বাড়িতে গিয়ে উঠি।’’

পূজা ও ছায়াকে দত্তক নেওয়ার সিদ্ধান্তের রাভিন বলেন, ‘যখন আমি প্রাপ্তবয়স্ক হলাম, তখন দেখি আমার কাজিনের সন্তানেরা কীভাবে জীবনযাপন করছে। দুর্ভাগ্যক্রমে ওদের বাবা-মা বেঁচে ছিল না। তাই আমি ভাবলাম, অন্যান্য NGO-র জন্য কাজ করি, এদিকে দুটি শিশু যাঁদের আমি আমার সামনে জন্মাতে দেখেছি, তাঁদের তো আরও ভালো জীবন দিতেই পারি। তাই যে মুহূর্তে আমি ২১ বছরে হলাম, আমি ওদের আইনি অভিভাবক হয়ে গেলাম।

রবিনার দত্তক দুই কন্যা এখন বিবাহিত, তারা এখন মা হয়ে গিয়েছেন। এবং রবিনার সঙ্গে নিয়মিত যোগযোগও রয়েছে তাদের।এবং অনিল থাডানিকে বিয়ে করার পর দুই সন্তানের জন্ম দেন রবিনা, ছেলের নাম রাখেন রণবীরবর্ধন আর মেয়ের নাম রাশা।