জুন ১৬, ২০২৪

রবিবার ১৬ জুন, ২০২৪

রাজধানীতে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা বন্ধের প্রতিবাদে চালকদের বিক্ষোভ

Drivers protest against the ban on battery-powered auto-rickshaws in the capital
ছবি: সংগৃহীত

ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা বন্ধ ঘোষণার প্রতিবাদে রাজধানীর মিরপুরের বিভিন্ন এলাকায়  লাঠিসোঁটা নিয়ে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছেন রিকশাচালকরা।

রোববার (১৯ মে) সকাল পৌনে ১০টার দিকে মিরপুর সাড়ে ১১ ও মিরপুর ১০ নম্বর সড়কে বিক্ষোভ করেন তারা। এতে মিরপুর ১০, ১১ ও ১২ নম্বরগামী যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজন জানান, রিকশাচালকদের বিক্ষোভের কারণে বাস চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় কয়েক কিলোমিটার পর্যন্ত হেঁটে গন্তব্যে পৌঁছাতে হচ্ছে যাত্রীদের।

এদিকে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মিরপুরের বেশ কয়েকটি স্থানে অটোরিকশাচালকরা সড়ক অবরোধ করে রেখেছে। তারা লাঠি হাতে রাস্তায় নেমে অবরোধ করছে। এসময় তারা সড়কে যান চলাচলে বাধা দিচ্ছে। আন্দোলনকারীরা তাদের দাবি না মানা পর্যন্ত রাস্তায় থাকবে বলছে।

মিরপুর সাড়ে ১১ এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, রিকশাচালকরা হাতে লাঠিসোটা নিয়ে সড়কে অবস্থান নিয়েছেন। তারা পূরবী এলাকা দিয়ে কোনো যানবাহন চলতে দিচ্ছেন না। কেউ যানবাহন নিয়ে যেতে চাইলে তাকে ধাওয়া দিচ্ছেন চালকরা। রিকশাচালকদের দাবি, কোনো শর্ত ছাড়া তাদের রাস্তায় অটোরিকশা ও ইজিবাইক চালাতে দিতে হবে।

সড়ক অবরোধের বিষয়ে রাজধানীর মিরপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুন্সি সাব্বির আহমেদ বলেন, মিরপুরের বিভিন্ন এলাকা থেকে অটোরিকশাচালকরা মিরপুর-১০ নম্বর চত্বরে এসে জড়ো হচ্ছেন। তারা লাঠি হাতে নিয়ে রাস্তা অবরোধ করে রেখেছে।

তবে পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার জন্য ঘটনাস্থলে পর্যাপ্ত সংখ্যক পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। তাদের (অটোরিকশাচালক) রাস্তা থেকে সরিয়ে দেওয়ার জন্য পুলিশ কাজ করছে।

এর আগে গত ১৫ মে রাজধানীতে ব্যাটারি বা যন্ত্রচালিত কোনো রিকশা চলতে না দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সেদিন বনানীতে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) ভবনে সড়ক পরিবহন উপদেষ্টা পরিষদের প্রথম সভায় এই নির্দেশ দেন ওবায়দুল কাদের।