জুন ১৬, ২০২৪

রবিবার ১৬ জুন, ২০২৪

বিশ্বে এই প্রথম এইচ৫এন২ বার্ড ফ্লুতে আক্রান্ত হয়ে মানুষের মৃত্যু

Bird Flu
ছবি: সংগৃহীত

মেক্সিকোতে বার্ড ফ্লুতে আক্রান্ত হয়ে এক ব্যক্তি মারা গেগে। যদিও সে আগে থেকেই শারীরিক বিভিন্ন জটিলতায় ভুগছিলেন। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে, বার্ড ফ্লুর এই ধরনে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে কোনো মানুষের মৃত্যুর ঘটনা এটাই প্রথম। সাধারণ মানুষের এ ভাইরাসে আক্রান্তের শঙ্কা খুবই কম।

বৃহস্পতিবার (৬ জুন) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে আল জাজিরা।

এতে বলা হয়েছে, বুধবার (৫ জুন) বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানায়, মেক্সিকো শহরের ৫৯ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি গত এপ্রিলে জ্বরে আক্রান্ত হয়, এরপর কিছু দিনের মধ্যেই তার ডায়েরিয়া, শ্বাসকষ্ট এবং বমিভাব দেখা দেয়। ওই ব্যক্তির স্বজনরা জানিয়েছে, তার অবস্থা গুরুতর হওয়ার আগেই তিন সপ্তাহ ধরে তিনি বিছানায় পড়ে ছিলেন।

মেক্সিকোর স্বাস্থ্য বিভাগ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ওই ব্যক্তি দীর্ঘদিন ধরেই কিডনি সমস্যা, ডায়বেটিস এবং উচ্চ রক্তচাপে ভুগছিলেন। পরে তাকে ২৪ এপ্রিল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে ওইদিনই মারা যান তিনি।

ডব্লিউএইচও জানিয়েছে, প্রাথমিক টেস্টে তার শরীরে অজানা ফ্লু’র উপস্থিতি পাওয়া যায়। পরবর্তীতে আরও উন্নত ল্যাবে টেস্ট করে এইচ৫এন২ টাইপের বার্ড ফ্লু’র উপস্থিতি পাওয়া যায়। বিশ্বে এ ধরনের ভাইরাসে আক্রান্ত এটাই প্রথম বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।

যুক্তরাষ্ট্রের জনস হপকিনস বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনফ্লুয়েঞ্জা বিশেষজ্ঞ অ্যান্ড্রু পেকোজ বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেন, ওই ব্যক্তির শারীরিক অবস্থা আগে থেকেই খারাপ ছিল। কিন্তু বার্ড ফ্লু ভাইরাস তার অবস্থা আরও জটিল করে ফেলে। তিনি কীভাবে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হলেন এটাই বড় প্রশ্ন।

ডব্লিউএইচও’র বিবৃতি বলা হয়েছে, ‘যদিও এই ক্ষেত্রে ভাইরাসের সংস্পর্শে আসার উৎসটি বর্তমানে অজানা, তবে মেক্সিকোতে পোল্ট্রিতে এ(এইচ৫এন২) ভাইরাসের খবর পাওয়া গেছে।’