মে ২৪, ২০২৪

শুক্রবার ২৪ মে, ২০২৪

বিয়ের অনুষ্ঠানে দই টক হওয়ায় বর-কনেপক্ষের মারামারি: ২০ জন আহত

বিয়ের অনুষ্ঠানে দই টক হওয়ায় বর-কনেপক্ষের মারামারি: ১৫ জন আহত
বিয়ের অনুষ্ঠানে দই টক হওয়ায় বর-কনেপক্ষের মারামারি: ১৫ জন আহত। ছবি: সংগৃহীত

লক্ষ্মীপুরে বিয়ের দাওয়াতে দই টক হওয়াকে কেন্দ্র করে কনেপক্ষের আমন্ত্রিত অতিথিদের হামলা ও ভাঙচুরে আহত হয়েছেন ২০ জন। পার্টি সেন্টারের মালিক রাকিবুজ্জামান রাকিব বাদী হয়ে ৭ জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাত ১২ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেন।

বুধবার (১৭ মে) দুপুরে লক্ষ্মীপুর পৌর শহরের কুটুমবাড়ি চাইনিজ রেস্টুরেন্ট ও পার্টি সেন্টারে ঘটেছে এ ঘটনা।

জানা গেছে, বাধা দিতে এসে হামলার শিকার হন রেস্টুরেন্টের মালিক রাকিবুজ্জামান রাকিব, সোহেল, পরান, মাজেদ, শাহাদাত, ইউনুস ও রাসেলসহ ২০ জন। পরে অন্যরা এগিয়ে এলে তাদেরকেও মারধর করার অভিযোগ পাওয়া যায়। ঘটনার পর পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

পুলিশ ও বিয়েতে আমন্ত্রিত অতিথিরা জানান, সদর উপজেলার শাহ্‌পুর এলাকার খোকন মিয়ার মেয়ে বৃষ্টির সঙ্গে একই উপজেলার মহাদেবপুর গ্রামের জাফর চৌধুরীর ছেলে আল আমিনের বিয়ে উপলক্ষে দুপুরে কুটুমবাড়ি চাইনিজ রেস্টুরেন্ট ও পার্টি সেন্টারে দু’পক্ষের মধ্যাহ্নভোজন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল।

প্রথম পর্বের খাওয়াতে একটি ভাড়ে দই টক হয়েছে বলে কনেপক্ষ অভিযোগ করে। এ নিয়ে রেস্টুরেন্ট কর্মীদের সাথে কনেপক্ষ তর্কাতর্কি শুরু করে। এতে বাদী রাকিব পরিস্থিতি শান্ত করার চেষ্টা করেন। তাদের সঙ্গে বরপক্ষও উত্তেজিত হয়ে ওঠে। এক পর্যায়ে উভয়পক্ষ পার্টি সেন্টারের কর্মীদের ওপর হামলা করে। এতে পার্টি সেন্টারের ১৫ জন কর্মী আহত হয়।

এসময় হামলায় নারী-পুরুষসহ ২০ জন আহত হয়। পরে তাদের বিভিন্ন ক্লিনিক ও সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হামলার পরপরই দ্রুত রেস্টুরেন্ট ছেড়ে যায় কনে ও বরপক্ষের অতিথিরা।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোসলেহ্ উদ্দিন জানান, হামলার ঘটনার পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ পাঠানো হয়। পরিস্থিতি বর্তমানে শান্ত রয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে হামলায় জড়িত দু’জনকে আটক করা হয়। পরে পার্টি সেন্টারের মালিক রাকিবের করা মামলায় তাদের গেপ্তার করা হয়। হামলাকারীদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।