মে ২৭, ২০২৪

সোমবার ২৭ মে, ২০২৪

বাংলাদেশের জন্য ৪০ কোটি ডলারের ঋণ অনুমোদন এডিবির

ADB approves $400 million loan for Bangladesh
বাংলাদেশের জন্য ৪০ কোটি ডলারের ঋণ অনুমোদন এডিবির। ছবি: সংগৃহীত

এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক (এডিবি) বাংলাদেশের জন্য ৪০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের (৪০ কোটি) ঋণ অনুমোদন করেছে। আজ মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে এমন তথ্য নিশ্চিত করেছে সংস্থাটি।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দেশীয় সম্পদ সংগ্রহে সংস্কারের অগ্রগতি, জনসাধারণের ব্যয়ের দক্ষতা ও উৎপাদনশীলতা উন্নত করতে এবং ছোট ব্যবসা, বিশেষ করে নারী-নেতৃত্বাধীন ব্যবসাগুলোকে অর্থায়নে সহায়তা করার জন্য এই ঋণের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এই ঋণটি এডিবি এর সাসটেইনেবল ইকোনমিক রিকভারি প্রোগ্রামের দ্বিতীয় সাবপ্রোগ্রাম, যা কোভিড-১৯ মহামারির পরে অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারে সহায়তা করার জন্য ২০২১ সালের অক্টোবরে চালু করা হয়েছিল।

ইআরডির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জনব্যবস্থাপনা অর্থনীতিবিদ আমিনুর রহমান জানান, ‘এই উপ-প্রোগ্রামটি বাংলাদেশকে রাজস্ব বাড়াতে, সরকারি ব্যয় এবং পাবলিক প্রকিউরমেন্টে দক্ষতা ও স্বচ্ছতা বাড়াতে, রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানের সংস্কার আরও দৃঢ় করতে এবং ক্ষুদ্র ব্যবসা ও ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদেরকে ব্যাংকিং খাত থেকে স্বল্প সুদে সাশ্রয়ী মূল্যের অর্থ সহায়তা পেতে সাহায্য করবে।’

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, নতুন প্যাকেজটি ডিজিটাল চ্যানেল এবং ই-ওয়ালেট ব্যবহার করে স্বল্পমূল্যের ক্ষুদ্রঋণ প্রদানের জন্য বাণিজ্যিক ব্যাংকের মাধ্যমে বাংলাদেশ ব্যাংকের উদ্ভাবনী অর্থায়ন পরিষেবা চালুকে সমর্থন করে। এটি প্রান্তিক ও ভূমিহীন কৃষক, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী এবং নিম্ন আয়ের ব্যক্তিদের ব্যাংক ঋণ প্রদানের সুবিধা দেয়। ক্ষুদ্র ও ক্ষুদ্র ব্যবসা এবং নারী উদ্যোক্তারা যাদের জমি বা সম্পত্তি নেই তারা তাদের বাণিজ্য রসিদ এবং অন্যান্য ধরনের অনির্ধারিত জামানত যেমন ছোট সরঞ্জাম এবং যন্ত্রপাতির উপর ভিত্তি করে ঋণ নিতে সক্ষম করবে।

এডিবি জানিয়েছে, প্রোগ্রামটি নতুন আয়কর আইন গ্রহণের মাধ্যমে আয়কর সংগ্রহকে উন্নত করবে, করের ত্রুটি হ্রাস করবে, সম্মতি এবং প্রয়োগকারী পদক্ষেপগুলোকে শক্তিশালী করবে।

আমিনুর রহমান বলেন, ‘লিঙ্গ, জলবায়ু পরিবর্তন এবং ডিজিটাইজেশনের উপর একটি দৃঢ় ফোকাসসহ এই উপ-প্রোগ্রাম দরিদ্র এবং দুর্বলদের জন্য আয় বৃদ্ধিতে সহায়তা করার সরকারি প্রচেষ্টাকে শক্তিশালী করবে।’

চরম দারিদ্র্য দূরীকরণের প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখে একটি সমৃদ্ধ, অন্তর্ভুক্তিমূলক, স্থিতিস্থাপক এবং টেকসই এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চল অর্জনে এডিবি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।