মে ২৪, ২০২৪

শুক্রবার ২৪ মে, ২০২৪

বাংলাদেশকে ৩২১০ কোটি টাকা ঋণ দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক

The World Bank is giving a loan of Tk 3210 crore to Bangladesh
বাংলাদেশকে ৩২১০ কোটি টাকা ঋণ দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক। ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশের আবাসিক ও শিল্প গ্রাহকদের জন্য প্রি-পেইড মিটার সিস্টেমের মাধ্যমে গ্যাস বিতরণ ও ব্যবহারের দক্ষতা উন্নত করতে ৩০০ মিলিয়ন ডলার (বাংলাদেশি মুদ্রায় ৩ হাজার ২১০ কোটি টাকা) ঋণ অনুমোদন করেছে বিশ্বব্যাংক। (প্রতি ডলার ১০৭ টাকা ধরে)। গত শুক্রবার এ ঋণ অনুমোদন করে এ আর্থিক সংস্থাটি।

বৃহস্পতিবার (২৭ জুলাই) যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসিতে বিশ্বব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে এই ঋণ অনুমোদন দেওয়া হয়। বিশ্বব্যাংকের ঢাকা অফিসের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বিশ্বব্যাংক জানায়, গ্যাস সেক্টর এফিসিয়েন্সি ইমপ্রুভমেন্ট এবং কার্বন অ্যাবেটমেন্ট প্রজেক্ট গ্যাস ট্রান্সমিশন, ডিস্ট্রিবিউশন নেটওয়ার্কে প্রাকৃতিক গ্যাস লিকেজ ও ক্ষয়ক্ষতি মোকাবিলা করতে এ অর্থ সহায়ক হবে। এর ফলে আবাসিক ও শিল্প ব্যবহারকারীদের ব্যবহারে অপচয় কমবে এবং নেটওয়ার্ক মনিটরিং ক্ষমতাকে শক্তিশালী করবে। ঢাকা ও রাজশাহী বিভাগে ১২ লাখের বেশি প্রিপেইড গ্যাস মিটার স্থাপন করা হবে।

যার আওতায় পশ্চিমাঞ্চল গ্যাস কোম্পানি লিমিটেডের (পিজিসিএল) সব আবাসিক গ্রাহক চলে আসবেন। এর আওতায় বৃহত্তর শিল্প প্রতিষ্ঠানের জন্য ৫০টি স্মার্ট মিটার চালু করা হবে।

বিশ্বব্যাংকের সিনিয়র এনার্জি স্পেশালিস্ট সামেহ আই মোবারেক বলেন, প্রিপেইড গ্যাস মিটার এবং উন্নত মনিটরিং সিস্টেম প্রাকৃতিক গ্যাসের ব্যবহার সবটুকু ব্যবহার, মিথেন লিকেজ প্রশমিত করতে সহায়তা করবে। একই সঙ্গে গৃহস্থালী এবং শিল্প ব্যবহারকারীদের জন্য গ্যাসের বিল কমাতে সহায়তা করবে।