এপ্রিল ২০, ২০২৪ ১০:১৯ অপরাহ্ণ
এপ্রিল ২০, ২০২৪ ১০:১৯ অপরাহ্ণ

বঙ্গবাজারে ক্ষতিগ্রস্থদের অনুদান দিবেন কুমিল্লার এমপি বাহার

ইফতার ও দোয়া মাহফিলে কুমিল্লার এমপি বাহার, সিটি মেয়র ও দোকান মলিক সমিতির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
ইফতার ও দোয়া মাহফিলে কুমিল্লার এমপি বাহার, সিটি মেয়র ও দোকান মলিক সমিতির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। ছবি: ফেসবুক

বঙ্গবাজার মার্কেটে আড়াই হাজারসহ আশপাশের মার্কেটে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় প্রায় ৫ হাজার দোকান ক্ষয়ক্ষতির শিকার হয়েছে। মর্মান্তিক এই অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়াতে এগিয়ে আসছেন দেশের সাধারন নাগরিক থেকে শুরু করে স্বায়ত্তশাসিত, আধা-স্বায়ত্তশাসিত, রাজনৈতিক গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, সেলেব্রিটিরা। যে যার মত করে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের জন্য অনুদান দিচ্ছেন।

গত বুধবার (৫ এপ্রিল) কুমিল্লা কান্দিরপাড় ফাইন্ড টাওয়ারে কুমিল্লা দোকান মালিক সমিতির আয়োজনে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা সদর আসনের সংসদ সদস্য ও মহানগর আওয়ামীলীগ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার, বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরফানুল হক রিফাত, রাজনৈতিক গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও কুমিল্লার দোকান মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথি বীর মুক্তিযোদ্ধা আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার, বঙ্গবাজারে আগুন ক্ষতিগ্রস্থদের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে এমপি ব্যক্তিগত পক্ষ হতে ১০ লক্ষ টাকা সহায়তা প্রদানের ঘোষনা দেন।

এছড়াও, কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরফানুল হক রিফাতকে ৫ লক্ষ টাকা ও কুমিল্লার দোকান মলিক সমিতিকে ১০ লক্ষ টাকা প্রদানের আহবান জানান। এ সময় দোকান মালিক সমিতি ও মেয়র আরফানুল হক রিফাত এমপি বাহারের আহবানে সাড়া দিয়ে সম্মতি জানায়। এমপি বাহার, মেয়র আরফানুল হক রিফাত ও কুমিল্লার দোকান মলিক সমিতির এ ২৫ লক্ষ টাকা দোকান মলিক সমিতির কেন্দ্রিয় নেতৃবৃন্দের হাতে তুলে দিবে। তারা এ ২৫ লক্ষ টাকা বঙ্গবাজারে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের যেখানে দরকার হবে সেখানে এ সহায়তার অর্থ ব্যায় করবেন।

আজ বুধবার (৬ এপ্রিল) বীর মুক্তিযোদ্ধা আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এক পোস্টের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তিনি।

পোস্টে তিনি বলেন, “রাজধানীর বঙ্গবাজারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।
পবিত্র রমজান মাসে ঈদুল ফিতর কে উদ্দেশ্য করে অনেকে জমি বিক্রি করে, অনেকে ঋণ নিয়েও ব্যবসা করার জন্য দোকানে মালামাল তুলেছিলেন। এ আগুন তাদের মালামালগুলোর সাথে যেন তাদের জীবনটাও তছনছ করে দিলো। এ মানুষগুলোর কথা চিন্তা করলে, টিভির পর্দায় এদের কান্নার চিত্র দেখলে আমরাও সহমর্মি হই ওদের বেদনায়। এ ক্ষতি অপূরণীয়।

তাদের জন্য আমার ব্যক্তিগত পক্ষ হতে ১০ লক্ষ টাকা দিয়ে আমি সেইসব ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ভাইদের পাশে দাড়ানোর উদ্যেগ নিয়েছি। কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র জনাব আরফানুল হক রিফাত ৫ লক্ষ টাকা এবং কুমিল্লা ব্যবসায়ী সমিতি ১০ লক্ষ টাকা দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে।”

পোস্টের শেষে তিনি বলেন, সবাইকে সামর্থ্য অনুযায়ী অসহায় ব্যবসায়ীদের পাশে দাড়ানোর জন্য আহবান জানাচ্ছি।