মে ২৪, ২০২৪

শুক্রবার ২৪ মে, ২০২৪

প্রবাসীর স্ত্রীর ব্যক্তিগত ছবি দেখিয়ে চাঁদা আদায়, অতঃপর…

RisingCumilla - Extortion by showing personal photos of expatriate's wife, then
ছবি: নোয়াখালী প্রতিনিধি

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে প্রবাসীর স্ত্রীর ব্যক্তিগত ছবি দেখিয়ে চাঁদা আদায় ও অনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের প্রস্তাব দেওয়ার অভিযোগে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। এ সময় প্রবাসীর স্ত্রীর অশ্লীল ছবি সংরক্ষিত মোবাইল উদ্ধার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত নুরুল ইসলাম (৪০) জেলার সেনবাগ উপজেলার বীজবাগ ইউনিয়নের ৮নম্বর ওয়ার্ডের শ্যামেরগাঁও গ্রামের মতিন আমিনের বাড়ির আবদুস সাত্তার ভূঁইয়ার ছেলে।

বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) ভোর রাতের দিকে উপজেলার সিরাজপুর ইউনিয়নের ২নম্বর ওয়ার্ডের বড় রাজাপুর গ্রামের লাল মিয়া মাঝি বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ জানায়, ভুক্তভোগী শিল্পী(৩২)(ছদ্মনাম) একজন গৃহিনী। তার স্বামী আমেরিকা প্রবাসী। ২০২২ সালের ২২ জানুয়ারি মোবাইল সেটের সমস্যা হলে ভিকটিম মোবাইল সেট ঠিক করতে কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট বাজারের আরডি শপিং মলে যায়।

অভিযুক্ত নুরুল ইসলাম নিজেকে মোবাইল মেকানিক পরিচয় দিয়ে গৃহবধূর মোবাইল সেটটি ঠিক করে দেয়ার কথা বলে নেয়। একপর্যায়ে ভিকটিমের মোবাইল নম্বর সংগ্রহ ও ভিকটিমের মোবাইল ফোনের গ্যালারী থেকে গৃহবধূর ব্যক্তিগত ছবি কৌশলে তার মোবাইলে ট্রান্সফার করে নিয়ে যায়।

পুলিশ আরও জানায়, এরপর ভিকটিমের ব্যক্তিগত ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছেড়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ৫ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে। ভিকটিম সামাজিক সম্মান হানির ভয়ে ও তার সংসার টিকানোর জন্য ২লাখ ৫০হাজার টাকা দেয়। এতে সে সন্তুষ্ট না হয়ে বাকী আরও আড়াই লক্ষ টাকা দাবি করে।

অন্যথায় ভিকটিমকে তার সাথে অনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের প্রস্তাব দেয়। ভিকটিম প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় নুরুল ইসলাম ভিকটিমের ছবি ও নাম ব্যবহার করে টিকটক আইডি খুলে ভিকটিমের ব্যক্তিগত ছবি ছেড়ে দেয়। বিষয়টি ভুক্তভোগীর নজরে আসলে পুলিশ সুপার বরাবর লিখিত অভিযোগ করে।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাজিম উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অভিযোগ পেয়ে অভিযুক্ত আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়। একই সাথে ভিকটিমের ব্যক্তিগত ছবি ও ভিকটিমের নাম ও ছবি ব্যবহার করা টিকটিক আইডি সংরক্ষিত মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। এ ঘটনায় কোম্পানীগঞ্জ থানায় মামলা দায়েরের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।