মে ২৭, ২০২৪

সোমবার ২৭ মে, ২০২৪

পাকিস্তানে থানায় বিস্ফোরণে ১২ জনের মৃত্যু, আহত ৬০

পাকিস্তানে থানায় বিস্ফোরণে ১২ জনের মৃত্যু, আহত ৬০
পাকিস্তানে থানায় বিস্ফোরণে ১২ জনের মৃত্যু, আহত ৬০। ছবি: সংগৃহীত

পাকিস্তানের একটি থানার অস্ত্রের গুদামে সোমবার একাধিক বিস্ফোরণে কমপক্ষে ১২ জনের প্রাণহানী হয়েছে। মৃতদের বেশিরভাগই পুলিশ সদস্য। কর্মকর্তারা এ কথা জানান।

পাকিস্তানের উত্তর-পশ্চিমের সোয়াট উপত্যকার একটি থানায় সোমবার রাতে এই বিস্ফোরণ ঘটেছে। থানার মধ্যেই এই বিস্ফোরণের জেরে কমপক্ষে ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহতের সংখ্যা ৬০ ছাড়িয়ে গিয়েছে।

এই ঘটনায় কোনও জঙ্গিসংগঠনের হাত রয়েছে কিনা সেটা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। প্রাথমিক ভাবে তদন্তে জানা গিয়েছে শর্ট সার্কিট থেকে বিস্ফোরণটি ঘটেছে। কিন্তু শর্ট সার্কিট থেকে এই ভয়ঙ্কর মাপের বিস্ফোরণ কীভাবে সম্ভব তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। সোয়াত প্রদেশের পুলিশ প্রধান আখতার হায়াত জানিয়েছেন, সন্ত্রাসবাদ বিরোধী অভিযানের জন্যই এই থানাটি তৈরি করা হয়েছিল। কাজেই এটা যে সন্ত্রাসবাদীদের টার্গেট হতেই পারে তাতে কোনও সন্দেহ নেই।

পাকিস্তানের উত্তর-পশ্চিমের সোয়াট উপত্যকা ২০০৯ সাল পর্যন্ত দীর্ঘ দিন ওই এলাকা সন্ত্রাসবাদীদের দখলে ছিল। সেনা অভিযানে শেষ পর্যন্ত উদ্ধার করা হয় এলাকা। বর্তমানে সেখানেই পাকিস্তানের সন্ত্রাস দমন বিভাগের সদর দফতর। বিস্ফোরণের তীব্রতায় সন্ত্রাস দমন বিভাগের সদর দফতরও কেঁপে ওঠে বলে জানিয়েছেন সোয়াট উপত্যকার পুলিশ প্রধান আখতার হায়াত।

পাকিস্তানের অবস্থা গত কয়েকমাস ধরে একেবারেই ভাল নয়। দেউলিয়া হয়ে গিয়েছে সরকার। মুদ্রাস্ফীতি চরম আকার নিয়েছে। দেশে খাদ্য সংকট দেখা দিয়েছে এতোটাই কঠিন পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যাচ্ছে গোটা দেশ। সেনা শাসনের পরিস্থিতির দিকে এগোচ্ছে পাকিস্তান এমনই ইঙ্গিত মিলেছে।