মে ২৪, ২০২৪

শুক্রবার ২৪ মে, ২০২৪

ধেয়ে আসছে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ‘রেমাল’, চলতি মাসেই আঘাত হানতে পারে

cyclone in bay of bengal
ছবি : সংগৃহীত

দেশে আবারও বাড়তে শুরু করেছে তাপমাত্রা। মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে দেশের অধিকাংশ জেলায়। সামনের কয়েক দিনে তাপদাহের বিস্তৃতি বাড়তে পারে আরও। এরই মধ্যে আভাস মিলেছে শক্তিশালী এক ভয়ংকর ঘূর্ণিঝড়ের।

২০০৯ সালের ২৫ মে। সুন্দরবনে আছড়ে পড়েছিল ভয়ংকর ঘূর্ণিঝড় ‘আইলা’। ভয়ংকর সেই দুঃস্বপ্ন ফের ফিরে আসতে পারে। চলতি বছরের ২৫ মে আরও একবার আছড়ে পড়তে পারে ‘রেমাল’ নামে একটি ভয়ংকর ঘূর্ণিঝড়। এমন তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় আবহাওয়া দপ্তর।

ভারতীয় আবহাওয়া অফিসের বরাত দিয়ে হিন্দুস্তান টাইমস এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, আগামী ২৪ মে বঙ্গোপসাগর থেকে শক্তি বাড়িয়ে একটি ঘূর্ণিঝড় ভূভাগের দিকে ধেয়ে আসতে পারে।

বঙ্গোপসাগরে ঘূর্ণিঝড়টি পূর্ণ রূপ নিলে এর নাম হবে ‘রেমাল’। এই নামটি দিয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ওমান।

পূর্বাভাস অনুযায়ী, চলতি মে মাসে বঙ্গোপসাগরে দুটি নিম্নচাপ সৃষ্টি হতে পারে। এর মধ্যে আগামী ২০ মে থেকে একটি ঘূর্ণিঝড়ের গতিপথ স্পষ্ট হতে পারে। যা ২৪ মে থেকে শক্তি বাড়িয়ে স্থলভাগের দিকে এগোতে পারে।

তবে কোথায়, কত গতিতে এই ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানতে পারে, তা এখনই বলা যাচ্ছে না। তবে অনুমান করা হচ্ছে, আগামী ২৫ মে সন্ধ্যার পর এই ঘূর্ণিঝড় ভারতের পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের উপকূলে আছড়ে পড়তে পারে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, এই ঘূর্ণিঝড়ের কারণে ২৪ মে রাত থেকে বৃষ্টি শুরু হতে পারে উপকূল এলাকায়। বৃষ্টি চলতে পারে ২৬ মে পর্যন্ত।

প্রসঙ্গত, ২০০৯ সালের ২৫ মে সুন্দরবনে আঘাত হেনেছিল ঘূর্ণিঝড় আইলা। সেই ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড়ের ১৫তম বর্ষের সন্ধ্যাতেই ঘূর্ণিঝড় ‘রেমাল’ আছড়ে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

আবহাওয়াবিদরা বলছেন, রেমালও আম্ফানের মতো বিধ্বংসী হতে পারে। তবে এটির শক্তি কতটুকু; শেষ পর্যন্ত সুপার সাইক্লোনে রূপ নেবে কি না, তা জানতে আরও কিছুটা সময় লাগবে।