ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২৪ ২:২৭ অপরাহ্ণ
ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২৪ ২:২৭ অপরাহ্ণ

কুমিল্লায় ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য ও মর্যাদায় উদযাপিত হচ্ছে বুদ্ধ পূর্ণিমা

কুমিল্লায় ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য ও মর্যাদায় উদযাপিত হচ্ছে বুদ্ধ পূর্ণিমা
কুমিল্লায় ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য ও মর্যাদায় উদযাপিত হচ্ছে বুদ্ধ পূর্ণিমা। ছবি: সংগৃহীত
কুমিল্লা জেলায় ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে বোধিবৃক্ষে পানি উৎসর্গের মাধ্যমে উদযাপিত হচ্ছে বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের ধর্মীয় উৎসব (বৈশাখী পূর্ণিমা) শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমা।
বুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপন উপলক্ষে কুমিল্লায় বৃহস্পতিবার (৪ মে) আজ দিনব্যাপী আয়োজিত কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা বুদ্ধ পূর্ণিমা, অষ্ট পরিস্কার দান, পঞ্চশীল ও অষ্টশীল গ্রহণ, দিবসের তাৎপর্য বিষয়ক ধর্মীয় আলোচনা, সমবেত প্রার্থনা ও প্রদীপ পূজা।
বুদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে কুমিল্লা ইপিজেড সার্বজনীন মৈত্রী বিহারের উপাসক উপাসিকাদের উদ্যোগে সকাল ৮টায় টাউন হল প্রাঙ্গণ হতে বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা, ৯টায় বিহারে পূজা অনুষ্ঠানাদির আয়োজন করা হয়েছে।
এদিকে গতকাল বিকেলে পুলিশ সুপার সম্মেলন কক্ষে বৌদ্ধদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব ২৫৬৭তম বুদ্ধ পূর্ণিমা সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে বৌদ্ধ নেতৃবৃন্দের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।
মতবিনিময় সভায় পুলিশ সুপার আবদুল মান্নান উপস্থিত বৌদ্ধ নেতৃবৃন্দকে শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমা উৎসবের শুভেচ্ছা জানিয়ে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে বৌদ্ধপূর্ণিমা অনুষ্ঠান করার জন্য নেতৃবৃন্দের প্রতি আহবান জানান। এ সময় জেলা ও থানা পুলিশ কর্মকর্তা এবং বৌদ্ধ ভিক্ষুসংঘ ও বৌদ্ধ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়াও কুমিল্লাসহ দেশজুড়ে বৌদ্ধ বিহারগুলোতে ধর্মীয় আলোচনা সভা, প্রভাত ফেরি, সমবেত প্রার্থনা, আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। এ উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক পৃথক বাণী দিয়েছেন। বাণীতে বাংলাদেশসহ বিশ্বের সব বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের মৈত্রীময় শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান তারা।কুমিল্লা জেলায় ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে বোধিবৃক্ষে পানি উৎসর্গের মাধ্যমে উদযাপিত হচ্ছে বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের ধর্মীয় উৎসব (বৈশাখী পূর্ণিমা) শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমা।

বুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপন উপলক্ষে কুমিল্লায় বৃহস্পতিবার (৪ মে) আজ দিনব্যাপী আয়োজিত কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা বুদ্ধ পূর্ণিমা, অষ্ট পরিস্কার দান, পঞ্চশীল ও অষ্টশীল গ্রহণ, দিবসের তাৎপর্য বিষয়ক ধর্মীয় আলোচনা, সমবেত প্রার্থনা ও প্রদীপ পূজা।

বুদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে কুমিল্লা ইপিজেড সার্বজনীন মৈত্রী বিহারের উপাসক উপাসিকাদের উদ্যোগে সকাল ৮টায় টাউন হল প্রাঙ্গণ হতে বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা, ৯টায় বিহারে পূজা অনুষ্ঠানাদির আয়োজন করা হয়েছে।

এদিকে গতকাল বিকেলে পুলিশ সুপার সম্মেলন কক্ষে বৌদ্ধদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব ২৫৬৭তম বুদ্ধ পূর্ণিমা সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে বৌদ্ধ নেতৃবৃন্দের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মতবিনিময় সভায় পুলিশ সুপার আবদুল মান্নান উপস্থিত বৌদ্ধ নেতৃবৃন্দকে শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমা উৎসবের শুভেচ্ছা জানিয়ে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে বৌদ্ধপূর্ণিমা অনুষ্ঠান করার জন্য নেতৃবৃন্দের প্রতি আহবান জানান। এ সময় জেলা ও থানা পুলিশ কর্মকর্তা এবং বৌদ্ধ ভিক্ষুসংঘ ও বৌদ্ধ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়াও কুমিল্লাসহ দেশজুড়ে বৌদ্ধ বিহারগুলোতে ধর্মীয় আলোচনা সভা, প্রভাত ফেরি, সমবেত প্রার্থনা, আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। এ উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক পৃথক বাণী দিয়েছেন। বাণীতে বাংলাদেশসহ বিশ্বের সব বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের মৈত্রীময় শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান তারা।