মার্চ ১, ২০২৪ ১১:২৪ পূর্বাহ্ণ
মার্চ ১, ২০২৪ ১১:২৪ পূর্বাহ্ণ

আফগান নারীদের জন্য অনলাইন ম্যাগাজিন ‘জান টাইমস’

Afghan women
প্রতীকি ছবি/সংগৃহীত

কানাডায় বসবাসরত আফগান নারী জাহরা নাদের “জান টাইমস” নামের একটি অনলাইন ম্যাগাজিন প্রকাশ করছেন। আফগানিস্তানে বাস করা নারী ছাড়াও বিশ্বের অন্যান্য দেশে থাকা আফগান নারীরা এতে কাজ করছেন।

২০২১ সালের আগস্টে তালেবান আফগানিস্তানের ক্ষমতা দখল করার পর মেয়েদের অনেক অধিকার খর্ব করা হয়েছে। এ অবস্থায় সেখানকার নারীদের পরিস্থিতি তুলে ধরতে ২০২২ সালের আগস্টে “জান টাইমস” চালু করেন জাহরা নাদের।

আফগানিস্তানে থাকার সময় নিউইয়র্ক টাইমসসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে সাংবাদিক হিসেবে কাজ করতেন ৩৪ বছর বয়সী জাহরা। এরপর পিএইচডি করতে কানাডা পাড়ি জমান। তিনি যখন দেশ ছাড়েন তখনও তালেবান ক্ষমতা দখল করেনি। “আমার মাতৃভূমির মেয়ে ও নারীদের সহায়তা করার দায়িত্ব অনুভব করেছি আমি,” বলেন জাহরা।

দেশ ও দেশের বাইরে থাকা আফগান নারী সাংবাদিকেরা তার ম্যাগাজিনে কাজ করেন বলে জানান তিনি। “আফগানিস্তানের অল্প কয়েকজন নারী সাংবাদিক স্থানীয় তথ্য সংগ্রহ করেন। তাদের জন্য কাজ করা খুব বিপজ্জনক। তালেবান যে ইস্যুগুলো শুনতে চায় না এমন বিষয়ে তারা প্রতিবেদন পাঠান। যেমন এলজিবিটি, মানবাধিকার, পারিবারিক সহিংসতা কিংবা বাল্যবিবাহ। প্রতিবেদন করার অনেক কিছু আছে। অনেক অবিচার আছে,” বলেন জাহরা।

ফার্সি ও ইংরেজি ভাষায় ম্যাগাজিনটি প্রকাশিত হয়। জাহরা বলেন, “তালেবানের প্রোপাগান্ডার সঙ্গে মেলে না এমন বিষয়ে প্রতিবেদন করা খুব বিপজ্জনক। আমাদের স্থানীয় সহকর্মীদের অনেক বেশি সতর্ক থাকতে হয়। তারা ছদ্মনামে লেখেন আর আমাদের সঙ্গে কথা বলার পর ঘরের বাইরে যান। তারা একে অপরকে চেনেন না। শুধু বিদেশে থাকা সহকর্মীদের সঙ্গে তাদের পরিচয় আছে।”

নিজের কাছে জমা থাকা অর্থ দিয়ে ম্যাগাজিনের কাজ শুরু করেছিলেন জাহরা। সে কারণে শুরুতে তাদের বেতন ছাড়াই কাজ করতে হয়েছে। তবে এখন তারা বৃত্তি ও দান পাচ্ছেন। জাহরা বলেন, “আমরা মানুষকে সচেতন করতে চাই। তাদের চিন্তা করতে শেখাতে চাই।”

আফগানিস্তানের নারীরা ছাড়াও বিশ্বের বিভিন্ন দেশে শরণার্থী হিসেবে থাকা আফগান নারীরা তার ম্যাগাজিন পড়েন বলে জানান তিনি।