মে ২৪, ২০২৪

শুক্রবার ২৪ মে, ২০২৪

অর্থ আত্মসাৎসহ নানা অভিযোগে কুমিল্লার চান্দিনা রেদোয়ান কলেজের অধ্যক্ষ বরখাস্ত

Chandina Redwan Ahmed University College.webp
ছবি: সংগৃহীত

কুমিল্লার চান্দিনা রেদোয়ান আহমেদ কলেজের অধ্যক্ষ মো. মনিরুল ইসলাম ভূইয়াকে প্রায় ৪৭ লাখ টাকা আত্মসাৎসহ নানা অভিযোগে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। কলেজ পরিচালনা পর্ষদ সভাপতি অ্যাডভোকেট শাহজালাল মিঞা স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে গত ১৮ এপ্রিল তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

ওই চিঠিতে আরও উল্লেখ করা হয়, ‘কলেজ অধ্যক্ষ মনিরুল ইসলাম অবৈধভাবে ছুটি ভোগ, দায়িত্ব অর্পণ না করে কর্মস্থল ত্যাগ (বিদেশ ভ্রমণ), বিদেশে থাকাকালে চেকের মাধ্যমে ব্যাংক থেকে টাকা উত্তোলন, ব্ল্যাঙ্ক চেকে স্বাক্ষর, বিদেশ ভ্রমণ শেষে কর্তৃপক্ষের অনুমতি না নিয়ে যোগদান করেন। এছাড়াও নানা অসঙ্গতি তুলে ধরেন কলেজ কর্তৃপক্ষ।’

এ বিষয়ে চান্দিনা রেদোয়ান আহমেদ কলেজ সভাপতি অ্যাডভোকেট শাহজালাল মিঞা শিপন বলেেন, ‘কলেজ অধ্যক্ষ মনিরুল ইসলামের বিরুদ্ধে অভিযোগের শেষ নেই। অধ্যক্ষ ও সাবেক সভাপতি মিলে কলেজ ফান্ডের লাখ লাখ টাকা আত্মসাৎ করেন। আমরা তদন্ত কমিটি গঠন করি। সেই কমিটি তাদের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ পেয়েছেন। আমরা আরও তদন্ত করবো।’

এ বিষয়ে অভিযুক্ত অধ্যক্ষ মনিরুল ইসলাম অভিযোগগুলো ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন। তিনি বলেছেন, ‘কলেজের কোনো টাকা ক্যাশ জমা নেওয়া হয় না। ব্যাংকের মাধ্যমে কলেজ একাউন্টে টাকা জমা হয়। সভাপতি ও অধ্যক্ষের যৌথ স্বাক্ষরে টাকা উত্তোলন করে আবার ওই টাকার খরচের হিসাব ভাউচারের মাধ্যমে হিসাব করা হয়।

এছাড়াও প্রতি তিন মাস পরপর অভ্যন্তরীণ অডিট কমিটি তা যাচাই-বাছাই করে অনুমোদন দেন। বিদেশ ভ্রমণে যেখানে কর্মস্থলের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের ‘নো অবজেকশন’ সনদপত্র প্রয়োজন হয় সেখানে আমি অনুমতি ছাড়া যাই কি করে?’

তিনি আরও বলেছেন, তাকে সামাজিকভাবে ও মানসিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করতেই এমন অপচেষ্টা করা হচ্ছে।